প্রচ্ছদ » এই দিনে » বিস্তারিত

ক্রিস্টোফ ওয়াল্টজ

২০১৫ অক্টোবর ০৪ ০০:০৬:৪৪
ক্রিস্টোফ ওয়াল্টজ

দ্য রিপোর্ট ডেস্ক : অস্ট্রিয়ান অভিনেতা ক্রিস্টোফ ওয়াল্টজ ১৯৫৬ সালের এ দিনে (৪ অক্টোবর) ভিয়েনায় জন্মগ্রহণ করেন। পরিচালক কুয়েন্টিন টারান্টিনোর চলচ্চিত্রে অভিনয় করে বিশ্বব্যাপী পরিচিতি পান তিনি। টারান্টিনোর সঙ্গে ইনগ্লোরিয়াস বাস্টার্ড (২০০৯) ও জাঙ্গো আনচেইনড (২০১২) চলচ্চিত্রে কাজ করেছেন। ওই ছবি দুটিতে টারান্টিনোর নান্দনিক ভায়োলেন্স তার অভিনয়ের সঙ্গে একদম মিলে গেছে।

তার বাবা জার্মান বংশোদ্ভূত জোহানেস ওয়াল্টজ ও মা অস্ট্রিয়ান বংশোদ্ভূত ইলিসাবেথ উরবানকিক। ওয়াল্টজ ভিয়েনার ম্যাক্স রাইনহার্ডট সেমিনারিতে অভিনয় নিয়ে পড়েন। এ ছাড়া নিউইয়র্কের লি স্ট্রেসবারগ থিয়েটার ও ফিল্ম ইনস্টিটিউটে পড়েন। তিনি জুরিখে মঞ্চে অভিনয়ের মাধ্যমে ক্যারিয়ার শুরু করেন। তিনি মূলত টেলিভিশন অভিনেতা। ২০০০ সালে জার্মান টেলিভিশনের জন্য পরিচালনা শুরু করেন। বেশকিছু জার্মান টেলিভিশন সিরিজ ও চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন। ১৯৯০ সালে তিনি ব্রিটিশ টিভি সিরিজ দ্য গ্রাভি ট্রেনে অভিনয় করেন।

২০০৯ সালে টারান্টিনোর ইনগ্লোরিয়াস বাস্টার্ড ছবিতে এস এস অফিসার হ্যান্স লিন্ডার ভূমিকায় অভিনয় করে সাড়া ফেলে দেন ওয়াল্টজ। এ চরিত্রে অনেকগুলো খারাপ গুণের মিশ্রণ দেখা যায়। এ ছবিতে তার প্রতিপক্ষ ছিলেন ব্রাড পিট। ওয়াল্টজ এ চরিত্রের জন্য সেরা পার্শ্ব চরিত্র বিভাগে নিউইয়র্ক ফিল্ম ক্রিটিকস সার্কেল, দ্য বোস্টন সোসাইটি অব ফিল্ম ক্রিটিকস ও লস অ্যাঞ্জেলস ফিল্ম ক্রিটিকস অ্যাসোসিয়েশন থেকে পুরস্কার পান। একই বিভাগে ২০০৯ সালে আরো জেতেন একাডেমি অ্যাওয়ার্ড, বাফটা, ৬৭তম গোল্ডেন গ্লোব অ্যাওয়ার্ড ও ১৬তম স্ক্রিন অ্যাক্টর অ্যাওয়ার্ডস। ২০১৩ সালে তিনি একই বিভাগে আবার একাডেমি অ্যাওয়ার্ড জেতেন জাঙ্গো আনচেইনড ছবির জন্য। এ ছবির জন্য আরো বেশ কয়েকটি পুরস্কার পান। অস্কারের এ পুরস্কারের ক্ষেত্রে তিনি বিরল রেকর্ডের অধিকারী। একই পরিচালকের ছবিতে অভিনয় করে দুটি একাডেমি অ্যাওয়ার্ড জেতার অভিজ্ঞতা আছে আর মাত্র দু’জন অভিনেতার।

তার অভিনীত অন্যান্য ছবির মধ্যে রয়েছে- দ্য গ্রিন হার্নেট (২০১১), ওয়াটার ফর এলিফ্যান্ট (২০১১), দ্য থ্রি মাস্কেটিয়ার্স (২০১১), কার্নেজ (২০১১), এপিক (২০১৩), দ্য জিরো থিওরাম (২০১৩), মাফেটস মোস্ট ওয়ান্টেড (২০১৪) ও বিগ আইস (২০১৪)। সামনে মুক্তি পাবে জেমস বন্ড সিরিজের ‘স্পেক্টা’।

তিনি সাবেক সোভিয়েত নেতা মিখাইল গর্ভাচেভের চরিত্রে রেইকজাভিক চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য নির্বাচিত হয়েছেন। এটি ১৯৮৬ সালের যুক্তরাষ্ট্র ও ইউএসএসআরের শান্তি আলোচনাকে ভিত্তি করে নির্মিত। ২০১৩ সালের কান চলচ্চিত্র উৎসবে তিনি প্রধান প্রতিযোগিতায় জুরি নির্বাচিত হন। ২০১৩ সালে বেলজিয়ামে অপেরা পরিচালনা করেন। এ ছাড়া ৬৪তম বার্লিন ইন্টারন্যাশনাল ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে জুরি ছিলেন।

ওয়াল্টজের অভিনয়ের সঙ্গে ভাষাগত দক্ষতা অসাধারণ। তার মাতৃভাষা জার্মান। কিন্তু ইংরেজি ও ফ্রেঞ্চ ভালো জানেন। এ তিন ভাষায় ইনগ্লোরিয়াস বাস্টার্ড ও জাঙ্গো আনচেইডে কথা বলেছেন। ইনগ্লোরিয়াস বাস্টার্ডে ইতালিয়ান ভাষায়ও কথা বলেছেন। তিনি জার্মান হিসেবে বেড়ে উঠেন। ২০১০ সালে অস্ট্রিয়ান নাগরিকত্ব গ্রহণ করেন। বর্তমানে তিনি জার্মান ও অস্ট্রিয়ার দ্বৈত নাগরিক।

উইকিপিডিয়া অবলম্বনে।

(দ্য রিপোর্ট/ডব্লিউএস/অক্টোবর ০৪, ২০১৫)