প্রচ্ছদ » স্বাস্থ্য » বিস্তারিত

প্রতি বছর স্তনক্যান্সারে মারা যায় ৭,১৪২ নারী

২০১৫ অক্টোবর ১০ ১৬:২৭:৩৬
প্রতি বছর স্তনক্যান্সারে মারা যায় ৭,১৪২ নারী

দ্য রিপোর্ট প্রতিবেদক : বাংলাদেশে প্রতি বছর স্তনক্যান্সারে আক্রান্ত হয় ১৪ হাজার ৮৩৭ জন নারী। এর মধ্যে মারা যায় ৭ হাজার ১৪২ জন। আক্রান্তদের মধ্যে ১৬ দশমিক ৯ শতাংশ নারী স্তনক্যান্সারে মারা যায়।

জাতীয় প্রেস ক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে শনিবার সকালে মিট দ্য প্রেস অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ স্তনক্যান্সার সচেতনতা ফোরামের সমন্বয়কারী ডা. মো. হাবিবুল্লাহ তালুকদার রাসকিন এ সব তথ্য জানান।

তিনি জানান, দেশের জনসংখ্যা ১৫ কোটি ২৪ লাখ ৮ হাজার ধরে তাদের এই অনুমিত হিসাব। তাদের হিসাবে প্রতি বছর সব মিলিয়ে মোট ১ লাখ ২২ হাজার ৭০০ মানুষ নতুন করে ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়, মারা যায় ৯১ হাজার ৩০০ ক্যান্সার রোগী।

মূল প্রবন্ধে বলা হয়, সারাবিশ্বের মতো বাংলাদেশেও মহিলাদের মধ্যে এক নম্বর ক্যান্সার স্তনক্যান্সার। নারী-পুরুষ মিলিয়ে হিসাব করলেও স্তন ক্যান্সারের স্থান শীর্ষ। প্রতি বছর নতুন করে আক্রান্তের হার এবং মৃত্যুর হার উভয়ক্ষেত্রে।

রাসকিন বলেন, ‘বিশ্বব্যাপী অক্টোবরকে স্তনক্যান্সার সচেতনতা মাস হিসেবে পালন করা হয়। এই মাসে আমাদের দেশেও বিভিন্ন সংগঠন কিছু কর্মসূচি পালন করে আসছে বিচ্ছিন্নভাবে। ২০১৩ সালের ১০ অক্টোবর বাংলাদেশে স্তনক্যান্সার সচেতনতা দিবস হিসেবে পালিত হয়। গঠিত হয় বাংলাদেশ স্তনক্যান্সার সচেতনতা ফোরাম।’

আগামী ৩১ অক্টোবর শনিবার সকাল ৯টায় জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে থেকে পিঙ্ক রোড শো (গোলাপী সড়ক শোভাযাত্রা) অনুষ্ঠিত হবে বলে জানানো হয় সংবাদ সম্মেলনে।

কর্মসূচি সম্পর্কে ফোরামের সমন্বয়ক বলেন, ‘১১ থেকে ৩০ অক্টোবর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, কর্মস্থল ও এলাকাভিত্তিক সচেতনতামূলক অনুষ্ঠানের আয়োজন হবে। আগামী ৩১ অক্টোবরের গোলাপী সড়ক শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত হবে।’

জাতীয় প্রেস ক্লাব থেকে শাহবাগ-বাংলামোটর-কারওয়ানবাজার-ফার্মগেট হয়ে মহাখালী-কাকলী-খিলক্ষেত হয়ে বিমানবন্দর-জসিমউদ্‌দীন রোড-রাজলক্ষ্মী-আজমপুর পর্যন্ত এই গোলাপী সড়ক শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত হবে।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন- ক্যান্সার সোসাইটির মহাসচিব অধ্যাপক ডা. শেখ গোলাম মোস্তফা, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের অনকোলজি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক সারওয়ার আলম, গাইনি অনকোলজি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. সাবেরা খাতুন, অধ্যাপক ডা. আশরাফুন্নেসা প্রমুখ।

সংবাদ সম্মেলনে আমন্ত্রিতদের ক্যান্সার সচেতনতার প্রতীক গোলাপী ফিতা পরিয়ে দেওয়া হয়।

(দ্য রিপোর্ট/এইউএ/এসবি/এজেড/অক্টোবর ১০, ২০১৫)