প্রচ্ছদ » জাতীয় » বিস্তারিত

সাবান দিয়ে ধুলে হাত, রোগ-জীবাণু কুপোকাত

২০১৫ অক্টোবর ১৫ ১২:৩৫:০৩
সাবান দিয়ে ধুলে হাত, রোগ-জীবাণু কুপোকাত

দ্য রিপোর্ট প্রতিবেদক : খাওয়ার আগে এবং টয়লেট ব্যবহারের পরে ঠিকমতো সাবান দিয়ে হাত পরিষ্কার করলে অনেক রোগ থেকে রক্ষা পাওয়া যায়।

‘স্বাস্থ্য পরিচর্যায় হাত বাড়াই’ শীর্ষক প্রতিপাদ্য নিয়ে বিশ্ব হাত ধোয়া দিবস উদযাপন করছে বাংলাদেশ।

বৃহস্পতিবার সকালে রাজধানীর ওসমানী মিলনায়তন প্রাঙ্গণে এক আড়ম্বরপূর্ণ অনুষ্ঠানে হাত ধোয়া কর্মসূচির উদ্বোধন করেন স্থানীয় সরকার বিভাগের অতিরিক্ত সচিব (পানি সরবরাহ) আকরামুল হোসেন।

অনুষ্ঠানে দুই হাত স্বাস্থ্য সম্মতভাবে ধোয়ার কৌশল শেখানো হয়। এতে একশর বেশি ছাত্র অংশ নেয়।

রোগ-প্রতিরোধে সাবান দিয়ে হাত ধোয়া একটি সহজ এবং সাশ্রয়ী পদ্ধতি। এর গুরুত্ব বুঝাতে প্রতি বছর মানুষের মধ্যে সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে বিশ্বব্যাপী ১৫ অক্টোবর ‘বিশ্ব হাতধোয় দিবস’ পালন হয়ে থাকে। ২০০৮ সাল থেকে এই দিবসটি পালন করা হচ্ছে।

আকরামুল হোসেন তার বক্তব্যে বলেন, ‘বাংলাদেশে মাত্র ১ শতাংশ মানুষ খোলা জায়গার পায়খানা ব্যবহার করে। এদিক দিয়ে দক্ষিণ এশিয়ায় আমরা সবার চেয়ে এগিয়ে। এ কারণে সহস্রাব্দ উন্নয়ন লক্ষ্য (এমডিডিজ) অর্জনে আমরা যথেষ্ট সফল হয়েছি।’

‘এখন হাত ধোয়ার মাধ্যমে অনেক রোগ প্রতিরোধ করতে পারলে এসডিজি বাস্তবায়নেও আমরা এগিয়ে যেতে পারব,’ যোগ করেন তিনি।

অনুষ্ঠানে ইউনিসেফের কান্ট্রি রিপ্রেজেন্ট এডওয়ার্ড বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।

তিনি বলেন, রোগ-প্রতিরোধে সবচেয়ে কম খরচে স্বাস্থ্যসম্মত ব্যবস্থা হলো ভাল করে সাবান দিয়ে হাত ধোয়া। বিশ্ব হাত ধোয়া দিবসে প্রতিবছর একশটির বেশি দেশে দুইশ মিলিয়ন মানুষ হাত ধোয়া কর্মসূচিতে অংশ নিয়ে থাকে। এবার বাংলাদেশের এই অনুষ্ঠানে থাকতে পেরে আমি আনন্দিত।’

স্থানীয় সরকার বিভাগের উদ্যোগে জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদফতর ও ইউনিসেফসহ বেশ কয়েকটি বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

অনুষ্ঠান শুরু আগে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে থেকে ওসমানী মিলনায়তন পর্যন্ত র‌্যালির আয়োজন করা হয়।

বিশ্ব হাত ধোয়া দিবসের এই অনুষ্ঠানে স্থানীয় সরকার বিভাগ, জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদফতর এবং সহযোগী বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থার ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

(দ্য রিপোর্ট/বিকে/এসবি/এএসটি/এনআই/অক্টোবর ১৫, ২০১৫)