প্রচ্ছদ » গণমাধ্যমের খবর » বিস্তারিত

২৬ ডিসেম্বর বিএফইউজের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন

২০১৫ অক্টোবর ১৭ ১৯:০৬:১৭ ২০১৫ অক্টোবর ১৮ ০৯:১০:০০
২৬ ডিসেম্বর বিএফইউজের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন

দ্য রিপোর্ট প্রতিবেদক : আগামী ২৬ ডিসেম্বর বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (বিএফইউজে) একাংশের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করা হয়েছে।

বিএফইউজের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এম আব্দুল্লাহর সভাপতিত্বে জাতীয় প্রেস ক্লাবের ইউনিয়ন কার্যালয়ে শনিবার সন্ধ্যায় অনুষ্ঠিত নির্বাহী কমিটির সভা থেকে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

এর আগে সকালে বিএফইউজের বার্ষিক কাউন্সিল অধিবেশন শুরু হয়। অধিবেশনে বার্ষিক রিপোর্ট পেশ করেন সংগঠনের মহাসচিব এম. এ আজিজ। অধিবেশন চলাকালে দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাব ইস্যুতে বক্তব্য পাল্টা বক্তব্য উত্থাপনের মধ্য দিয়ে শেষ হয় বার্ষিক সাধারণ অধিবেশন।

এতে জাতীয় প্রেস ক্লাবের দখল পাল্টাদখলের বিষয় নিয়ে তুমুল বাকবিতণ্ডা হয়।

আলোচনায় জাতীয় প্রেস ক্লাব নিয়ে কাউন্সিলরদের মধ্যে ক্ষোভ ও হতাশাও দেখা দেয়।

সভায় বিএফইউজের সাবেক সভাপতি রুহুল আমিন গাজী সাংবাদিকদের ঐক্যের আহ্বান জানান। কাউন্সিল অধিবেশনের জন্য প্রেস ক্লাবের অডিটরিয়াম বরাদ্দ না দেওয়ায় বর্তমান কমিটির ওপর ক্ষোভ প্রকাশ করেন তিনি।

জাতীয় প্রেস ক্লাবের সহ-সভাপতি ও কাউন্সিলর আমিরুল ইসলাম কাগজী প্রেস ক্লাবের নতুন কমিটির পুরো বিষয়টি কাউন্সিলরদের সামনে তুলে ধরেন।

এ ছাড়াও একই বিষয়ে বক্তব্য রাখেন জাতীয় প্রেস ক্লাবের সদস্য সরদার ফরিদ আহমদ।

তিনি বলেন, ‘সাংবাদিক নেতাদের মধ্যে কেউ অপরিহার্য নয়। আমাদের নেতাদের মধ্যে কেউ কেউ ধরেই নিয়েছিলেন তাদের ছাড়া প্রেস ক্লাব ও ইউনিয়ন চলবে না। তাদের একগুঁয়েমির কারণে আজকে আমাদের ইউনিয়নে এই অনৈক্যের জন্ম হয়েছে। এখনো সময় আছে। ঐক্যের কোনো বিকল্প নেই।’

এর আগে ঢাকার বাইরে থেকে আসা কাউন্সিলর আনোয়ারুল কবির নান্টু প্রেস ক্লাবের ইস্যুটি তুলে ধরেন। তিনি বিএফইউজেকে অডিটরিয়াম ব্যবহার করতে না দেওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

একই বিষয়ের ওপর আলোচনা করেন ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সাবেক সভাপতি আব্দুস শহীদ, সাবেক সাধারণ সম্পাদক বাকের হোসাইন, মহিদুল ইসলাম মন্টু (যশোর), ফজলে রাব্বি ডলার (বগুড়া), শাহনেওয়াজ, জাহিদুল করিম কচি, ইস্কান্দার আলী চৌধুরী (চট্টগ্রাম), শাহ আলম শফি (কুমিল্লা), মোস্তফা কামাল, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের একাংশের সভাপতি কবি আবদুল হাই শিকদার, সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম প্রধান, নুরুল আমিন রোকন, রেজাউল করীম রাজু, শহীদুল ইসলাম, আবু ইউসুফ, আবদুস শহীদ, ম. আনিসুজ্জামান, আব্দুল আউয়াল, মমিনুর রশিদ শাইন, শফিউল্লাহ শফি, খায়রুল বাশার, শহীদুল ইসলাম, এহতেশামুল হক শাওন, নুর ইসলাম, আব্দুর রাজ্জাক রানা প্রমুখ।

এ ছাড়া ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের একাংশের সভাপতি এলাহী নেওয়াজ খান সাজুকে বক্তব্য দিতে না দেওয়ায় তিনি অধিবেশন বয়কট করেন। এ সময় তার সঙ্গে বেশ কয়েকজন কাউন্সিলর অধিবেশন থেকে বেরিয়ে যান।

এদিকে বিএফইউজের’র ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এম আব্দুল্লাহ রাতে দ্য রিপোর্টকে জানান, ২৬ ডিসেম্বর বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করা হয়েছে।

রাতে সংগঠনের প্রচার সম্পাদক আবু ইউসুফ স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে সাত দফা দাবি সভায় গৃহীত হয়েছে বলে জানানো হয়।

দাবিগুলোর মধ্যে রয়েছে- বিএফইউজে’র সভাপতি শওকত মাহমুদ এবং দৈনিক আমার দেশ সম্পাদক মাহমুদুর রহমানের মুক্তির দাবি। এছাড়া দৈনিক আমার দেশ, দিগন্ত টেলিভিশন, ইসলামিক টেলিভিশন, চ্যানেল ওয়ানসহ বন্ধ গণমাধ্যমের ওপর নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করে সেগুলো খুলে দেওয়া।

অন্য দাবিগুলোর মধ্যে রয়েছে- সরকারের বিজ্ঞাপন প্রদানের ক্ষেত্রে বৈষম্যে দূর করা। সাগর-রুনীসহ নিহত ২৪ সাংবাদিকের খুনিদের অবিলম্বে গ্রেফতার করে শাস্তি প্রদান। তথ্যপ্রযুক্তি আইনে গণমাধ্যমের স্বাধীনতা বিরোধী ধারা বাতিল। জাতীয় প্রেস ক্লাবের নির্বাচিত কমিটির হাতে এর পরিচালনার ভার ন্যস্ত এবং নবম ওয়েজ বোর্ড গঠন করে গণমাধ্যম কর্মীদের বেতন-ভাতা বৃদ্ধি।

(দ্য রিপোর্ট/সাআ/এইচএইচ/অক্টোবর ১৭, ২০১৫)