প্রচ্ছদ » শিক্ষা » বিস্তারিত

ভর্তি পরীক্ষা না নেওয়ার সিদ্ধান্ত জাবি শিক্ষক সমিতির

২০১৫ অক্টোবর ১৭ ২১:২৬:৩৮
ভর্তি পরীক্ষা না নেওয়ার সিদ্ধান্ত জাবি শিক্ষক সমিতির

জাবি প্রতিনিধি : অষ্টম জাতীয় বেতন কাঠামো পুনঃনির্ধারণ ও শিক্ষকদের জন্য স্বতন্ত্র বেতন কাঠামোর দাবিতে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষের প্রথম বর্ষের স্নাতক (সম্মান) শ্রেণীরভর্তি পরীক্ষা না নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি।

শনিবার দুপুর১টা থেকে বিকেল চারটা পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের জহির রায়হান মিলনায়তনের সেমিনার কক্ষে অনুষ্ঠিত শিক্ষক সমিতির সাধারণ সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।সমিতির সভাপতি অধ্যাপক মো. খবির উদ্দিন গণমাধ্যমেবিষয়টি জানান।

তবে, এই সিদ্ধান্ত থেকে `সরে আসার চেষ্টা' করা হতে পারে বলেও জানান তিনি।

আগামী ২৫ অক্টোবর থেকে ২নভেম্বরপর্যন্ত ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা। শিক্ষক সমিতির এ সিদ্ধান্তের ফলে ভর্তি পরীক্ষা অনিশ্চয়তার মুখে পড়লো।

এছাড়া অনুষ্ঠিত সভায়, শিক্ষক লাঞ্ছনার অভিযোগে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ফয়সাল হোসেন দীপুকে চাকরি থেকে অব্যাহতি দিতে জাবি উপাচার্যকে ২৪ ঘণ্টার আল্টিমেটাম দিয়েছে শিক্ষক সমিতি। এর মধ্যে নিয়োগ বাতিল করা না হলে আগামী ১৯ অক্টোবর থেকে সর্বাত্মক কর্মবিরতি পালন করা হবে বলে জানিয়েছেনশিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মোহাম্মদ মাফরুহী সাত্তার।

উল্লেখ্য,গত ১৩ জুলাই বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ফারজানা ইসলাম চার ছাত্রলীগ নেতাসহ ছয়জনকে এ্যাডহক ভিত্তিতে বিশ্ববিদ্যালয়ে বিভিন্ন পদে নিয়োগ দেন।উপাচার্যবিরোধী আন্দোলন চলাকালে শিক্ষকদের ওপর হামলা চালানোর অভিযোগে অভিযুক্ত ছাত্রলীগ নেতা ফয়সাল হোসেন দীপুকে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারে প্রশাসনিক কর্মকর্তা হিসেবেনিয়োগ দেওয়া হয়। নিয়োগ দেওয়ার পর থেকেই শিক্ষকেরা তার নিয়োগ বাতিলের দাবি জানিয়ে আসছেন।

(দ্য রিপোর্ট/এমডি/এনআই/অক্টোবর ১৭, ২০১৫)