প্রচ্ছদ » জাতীয় » বিস্তারিত

প্রতিমা বিসর্জন ও তাজিয়া মিছিলের সময় বেঁধে দিয়েছে ডিএমপি

২০১৫ অক্টোবর ১৮ ১৭:৫৫:০৯
প্রতিমা বিসর্জন ও তাজিয়া মিছিলের সময় বেঁধে দিয়েছে ডিএমপি

দ্য রিপোর্ট প্রতিবেদক : দুর্গাপূজার প্রতিমা বিসর্জন ও আশুরার তাজিয়া মিছিল একই দিন হওয়ায় শৃঙ্খলা রাখতে ভিন্ন ভিন্ন সময় বেঁধে দিয়েছে ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি)। বেঁধে দেওয়া সময়ের মধ্যে তাদের অনুষ্ঠানের আনুষ্ঠানিকতা শেষ করতে হবে।

সময়গুলো হল- শুক্রবার প্রতিমা বিসর্জন দুপুর ২টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা এবং সন্ধ্যা ৭টা থেকে শনিবার দিবাগত রাত পর্যন্ত তাজিয়া মিছিল হবে।

ডিএমপির মিডিয়া সেন্টারে রবিবার দুপুরে দুর্গাপূজা ও আশুরা উপলক্ষে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে আয়োজিত এক প্রেস ব্রিফিংয়ে ঢাকা মহানগর পুলিশ কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া এ তথ্য জানান।

কমিশনার বলেন, আগামী শুক্রবার প্রতিমা বিসর্জনের মধ্যে দুর্গাপূজার আনুষ্ঠানিকতা শেষ হবে। এদিনই রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় পবিত্র আশুরা উপলক্ষে তাজিয়া মিছিল বের করা হবে। একই দিন মুসলমান ও হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের অনুষ্ঠান থাকায় শৃঙ্খলা বজায় রাখতে সময় বেঁধে দেওয়া হচ্ছে।’

তিনি বলেন, ‘পুলিশের বেঁধে দেওয়া সময় অনুযায়ী প্রতিমা বিসর্জন দুপুর ২টা থেকে ৬টার মধ্যে করতে হবে। এরপর সন্ধ্যা ৭টা থেকে শনিবার রাত পর্যন্ত তাজিয়া মিছিল হবে।’

তিনি জানান, প্রতিমা বিসর্জনের জন্য ঢাকার দুটি স্থান নির্ধারণ করা হয়েছে। একটি- পুরান ঢাকার ওয়াইজঘাট। অন্যটি উত্তরার বিআইডব্লিউটিএ’র ল্যান্ডিং স্টেশন। এর মধ্যে যারা ওয়াইজঘাটে প্রতিমা বিসর্জন দেবেন তাদের সকাল ১০ থেকে সাড়ে ১০টার মধ্যে ঢাকেশ্বরী মন্দিরে আসতে হবে। জুমার নামাজ থাকায় বেলা ১২টা থেকে বেলা ২টা পর্যন্ত প্রতিমা বিসর্জন করা যাবে।

এদিকে দুর্গোৎসকে কেন্দ্র করে হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজনকে নিরাপত্তা দিতে ৬ হাজার ৮৬৩ জন পুলিশ সদস্য মোতায়েন থাকবে বলে জানান কমিশনার মো. আছাদুজ্জামান মিয়া। একই সঙ্গে আশুরা উপলক্ষে আরও আড়াই হাজার পুলিশ দায়িত্ব পালন করবেন।

আছাদুজ্জামান মিয়া জানান, ঢাকা মহানগরীতে ২২১টি পূজামণ্ডপে দুর্গাপূজা উদযাপিত হবে। এ সব পূজামণ্ডপে আগত হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকদের নিরাপত্তা দিতে আমাদের ৬ হাজার ৮৬৩ জন পুলিশ সদস্য মোতায়েন থাকবে।’

তিনি জানান, প্রতিটি পূজামণ্ডপে পৃথক পৃথক নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। গোয়েন্দা পুলিশের বিশেষায়িত টিম, সোয়াট টিম, বোম ডিসপোজাল টিম, ভিডিও স্টল ক্যামেরা টিম, সুইপিং, ডগ স্কোয়াড ও গুরুত্বপূর্ণ মণ্ডপে সিসি ক্যামেরা স্থাপন করা হয়েছে।

এদিকে পবিত্র আশুরা উপলক্ষে ২ হাজার ৫শ’ জন পুলিশ সদস্য দায়িত্ব পালন করবে বলে জানান আছাদুজ্জামান মিয়া।

তিনি বলেন, ‘আগামী ২৪ অক্টোবর পবিত্র আশুরা অনুষ্ঠিত হবে। দিনটি উপলক্ষে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় শোভাযাত্রা বের করা হয়। পুলিশ তাদের সার্বিক নিরাপত্তা ব্যবস্থা করবে।’

কমিশনার বলেন, ‘মিছিলের আগে-পরে ও আশপাশে পর্যাপ্ত পুলিশ সদস্য মোতায়েন রাখা হবে। এ ছাড়া যানজটমুক্ত রাখতেও পুলিশ সর্বাত্মক চেষ্টা করবে।’

(দ্য রিপোর্ট/এনএস/এপি/আরকে/অক্টাবর ১৮, ২০১৫)