প্রচ্ছদ » ক্রিকেট » বিস্তারিত

সমালোচনার তীরে এবার ক্ষত-বিক্ষত রায়না

২০১৫ অক্টোবর ১৯ ১৩:২২:৩১
সমালোচনার তীরে এবার ক্ষত-বিক্ষত রায়না

দ্য রিপোর্ট ডেস্ক : বিরাট কোহলি ও মহেন্দ্র সিং ধোনির পর এবার সুরেশ রায়নাকে বেছে নিয়েছেন সমালোচকরা। হয়তো মুখের স্বাদ পরিবর্তন করতে চাইছেন তারা! কিংবা কোহলি-ধোনি তাদের সমালোচনার জ্বালামুখ বন্ধ করে দিয়েছেন বলে অন্যপথে সেই মুখ উন্মুক্ত করতে চাইছেন বিজ্ঞ সমালোচকরা। সে যাই হোক; সমালোচনার তীরে এখন ক্ষত-বিক্ষত হতে হচ্ছে ভারতের তারকা ক্রিকেটার সুরেশ রায়নাকে।

রায়নার সময়টা আসলেই ভাল যাচ্ছে না। হার্ড হিটিং ব্যাটিংয়ের পাশাপাশি দলের প্রয়োজনীয় মুহূর্তে বড় ইনিংস খেলার ক্ষমতা; সুরেশ রায়না তাই খুব দ্রুতই জনপ্রিয়তা পেয়েছিলেন ভারতে। দেশটির জাতীয় ক্রিকেট দলেও গুরুত্বপূর্ণ বলেই বিবেচিত হয়েছেন তিনি। কিন্তু হঠাৎ করেই যেন রায়নার ব্যাটে রান খরা চলছে।

রবিবার সফরকারী দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে (তৃতীয় ওয়ানডেতে) আরও একবার শূন্য রানে আউট হয়েছেন রায়না। এর আগে দ্বিতীয় ওয়ানডেতেও কোনো রান না করেই আউট হয়েছিলেন তিনি। আর প্রথম ওয়ানডেতে করেছিলেন মাত্র ৩ রান। রায়না তাই রয়েছেন কঠিন চাপে; সমালোচকদের বিষাক্ত তীরের আগায়। ঠিক যেমনটা হয়েছে মহেন্দ্র সিং ধোনি ও বিরাট কোহলির ক্ষেত্রে।

বলিউড অভিনেত্রী আনুশকা শর্মার সঙ্গে প্রেম। ক্রিকেটে হয়তো তাই কিছুদিন পূর্ণ মনোযোগ ধরে রাখতে পারেননি কোহলি। দলের বিপর্যয়ে বেশ ক’বারই হাল ধরতে ব্যর্থ হয়েছেন। এর জন্য কোহলি-আনুশকাকে বেশ বড় মূল্যই দিতে হয়েছিল। যারা সমালোচনা করতে পছন্দ করেন, তারা বেশ একটা সুযোগ পেয়ে গিয়েছিলেন। সমালোচনার বিষ-বাষ্পে দম বন্ধ হওয়ার যোগাড় হয়েছিল কোহলিদের। যদিও শেষ অব্দি মাঠের খেলায় পারফরম্যান্স দেখিয়ে সমালোচকদের মুখ বন্ধ করতে সক্ষম হয়েছেন কোহলি।

ভারতকে দুটি ফরম্যাটের বিশ্বকাপ জেতানো অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনির ক্ষেত্রেও ঘটেছে তাই। ব্যাটে রান পাচ্ছিলেন না বেশ কিছু সময় ধরে; আরা তাতেই ধোনির শান্তি কেড়ে নিয়েছিলেন সমালোচক সম্প্রদায়। শেষ অব্দি দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে দ্বিতীয় ও তৃতীয় ওয়ানডেতে উল্লেখযোগ্য রান করে মুক্তি পেয়েছেন ধোনি। প্রশ্ন হচ্ছে, রায়না কি পারবেন সমালোচনার এই ভার থেকে নিজেকে মুক্ত করতে?

অবশ্য রায়নার পাশে দাঁড়িয়েছেন ভারত অধিনায়ত ধোনি। রবিবার দক্ষিণ আফ্রিকার কাছে ১৮ রানের হারের পর ধোনি বলেছেন, ‘আসলে এই মুহূর্তে তার (রায়না) উচিত ক্রিজে গিয়ে নিজেকে ধাতস্থ করার মতো কিছুটা সময় নেওয়া। দলের প্রয়োজনেই রায়না মাঠে নেমে বিগ শট খেলতে অভ্যস্থ। তবে বর্তমান মুহূর্তে শুরুতেই বিগ শট না খেলে রায়নার উচিত হবে আগে কিছু বল খেলে নিজেকে উইকেটে মানিয়ে নেওয়া। তাহলেই সব ঠিক হয়ে যাবে।’

(দ্য রিপোর্ট/জেডটি/আরকে/অক্টোবর ১৯, ২০১৫)