Airtel & Robi User Only

প্রচ্ছদ » অপরাধ ও আইন » বিস্তারিত

ময়মনসিংহের সোহাগ হত্যা : ২ জনের যাবজ্জীবন

২০১৫ অক্টোবর ১৯ ১৭:২১:৩০
ময়মনসিংহের সোহাগ হত্যা : ২ জনের যাবজ্জীবন

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি : ময়মনসিংহের ফুলপুরে চাঞ্চল্যকর সোহাগ হত্যা মামলায় দু’জনের যাবজ্জীবন এবং একজনকে পাঁচ বছর সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

ময়মনসিংহের অতিরিক্ত দ্বিতীয় দায়রা জজ আদালতের বিচারক জহিরুল হক সোমবার বিকেলে এ রায় ঘোষণা করেন। যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্তরা হলেন- ফুলপুর উপজেলার ঢাকিরকান্দা গ্রামের আবুল কালামের ছেলে তানভীর আহমেদ অলি এবং শেরপুর রোডের হোমিও চিকিৎসক আবু আব্দুল্লাহর ছেলে আসাদুজ্জামান আসাদ।

আদালত পরিদর্শক মো. নওজেস আলী মিয়া জানান, ২০০৯ সালের ১৯ মে ফুলপুর উপজেলা সদরের গ্রীন রোডের আব্দুল লতিফের ছেলে আবু সিনা সোহাগ (২২) নিখোঁজ হন। চার দিন পর সদরের গোদারিয়া গ্রামের খড়িয়া নদী থেকে তার মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

ওই ঘটনায় ওই বছরের ২৩ মে নিহতের মামা শহিদুল ইসলাম ফকির (তসলিম) বাদী হয়ে ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগ এনে ঢাকিরকান্দা গ্রামের আবুল কালামের ছেলে তানভীর আহমেদ অলি, শেরপুর রোডের হোমিও চিকিৎসক আবু আব্দুল্লাহর ছেলে আসাদুজ্জামান আসাদ এবং আসিফ হাসানকে আসামি করে ফুলপুর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

মামলার সাক্ষ্য-প্রমাণ শেষে ছয় বছর পর ময়মনসিংহের অতিরিক্ত দ্বিতীয় দায়রা জজ আদালতের বিচারক আসামি তানভীর আহমেদ অলি ও আসাদুজ্জামান আসাদকে যাবজ্জীবন এবং অপর আসামি আসিফ হাসানকে পাঁচ বছরের সাজা প্রদান করেন।

মামলার বিবরণে জানা গেছে, পাওনা টাকা চাওয়া নিয়ে সোহাগ ও তার বন্ধুদের (আসামি) সঙ্গে ঝগড়া হয়। এরই জেরে আসামিরা সোহাগকে বাড়ি থেকে ডেকে এনে মাথায় আঘাত করে এবং সুপার গ্লু নাকে-মুখে দিয়ে শ্বাসরোধে হত্যা করে। পরে পাশের খড়িয়া নদীতে তা ফেলে দেওয়া হয়।

(দ্য রিপোর্ট/এমএআর/আরকে/অক্টোবর ১৯, ২০১৫)